Ads By Blogger

Monday, July 29, 2019

কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা (Artificial intelligence) -মানব জাতীর জন্য হুমকি নাকি আশীর্বাদ -bdtipstech

Artificial intelligence অর্থাৎ কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা এমন একটি প্রসঙ্গ যা গত শতাব্দীর মাঝামাঝি সময় থেকে আলোচনার কেন্দ্রে আসে, যদিও মূল বিকাশ লাভের বিষয়টা ঘটে আশি ও নব্বইয়ের দশকেই । মূলত যন্ত্রের ভেতর চিন্তা করার শক্তি সৃষ্টি করাই কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার মূল বিষয়, যদিও এর অনেক প্রকরণ আছে, আছে সক্ষমতার কিছু মাত্রাও। কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা মূলত কম্পিউটার প্রকৌশল ও যন্ত্রকৌশলের সমন্বয়, যেগুলির সাথে সংযোগ হয়েছে অনুভূতির ও সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতার, যার সার্বিক ফলাফল হল এই কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা।


 কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা (Artificial intelligence)  -মানব জাতীর জন্য হুমকি নাকি আশীর্বাদ
 কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা (Artificial intelligence)  -মানব জাতীর জন্য হুমকি নাকি আশীর্বাদ 

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা কাকে বলে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার জনক কে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বৈশিষ্ট্য কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার প্রয়োগ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ইতিবাচক ব্যবহার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ভবিষ্যৎ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা কিভাবে কাজ করে  bd tech blog


পঞ্চাশের দশকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও সোভিয়েত ইউনিয়নের ঠাণ্ডাযুদ্ধের(Cold War) সময়টাতেই এই কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা বিকাশের গুরুত্ব বুঝতে পারে দুটি পরাশক্তিই। পরবর্তীতে ৮০র দশকে এই দ্বৈরথ একটি গুরুত্বপূর্ণ মাত্রা নেয়। ৯০এর দশকে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার প্রয়োগের এক আশ্চর্য নিদর্শন পৃথিবী দেখতে পায়, যখন ডিপ ব্লু নামক কম্পিউটার প্রোগ্রাম তৎকালীন দাবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন গ্র্যান্ডমাস্টার গ্যারি কাসপারভকে খেলায় হারিয়ে আলোড়ন তোলে। বর্তমান সময়ে উন্নত দেশগুলোতে এমনকি দৈনন্দিন জীবনযাপনেও টুকটাক কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন রোবট বা সমগোত্রীয় যন্ত্রপাতি বা যন্ত্রাংশ ব্যাবহার করা হয়ে থাকে। ঘরদোর পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখা, অতিথির আগমনে সারা দেয়া, গবেষণাগার ব্যাবস্থাপনা, স্বয়ংক্রিয় কাজ কিন্তু কিছুটা সিদ্ধান্ত নেয়ার প্রয়োজন আছে, এমন কাজ, এমন আরও কিছু কাজগুলিতে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন যন্ত্রের ব্যাবহার কাজে লাগানো হচ্ছে অহরহ। কিছু উচ্চতর গবেষণা, মহাকাশগবেষণা, প্রতিরক্ষা ও অন্যান্য স্পর্শকাতর ক্ষেত্রগুলিতে যেখানে মানবিক ক্রুটিবিচ্যুতি গ্রহণযোগ্য ও নির্ভরযোগ্য নয় সে সমস্ত জায়গায় কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা ব্যাবহার করা যায়। এছাড়াও কিছু ক্ষেত্রে মানুষের জীবন ঝুঁকিতে না ফেলতেও কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা ব্যাবহার করা হয়ে থাকে। এখন, অন্য সকল উপকারী কিন্তু স্পর্শকাতর প্রযুক্তির মত, এই প্রশ্নটি স্বাভাবিকভাবেই উঠেছে, Artificial intelligence -মানব জাতির জন্য হুমকি নাকি আশীর্বাদ। এটা একটা এমন বিষয় যার পক্ষে বা বিপক্ষে মতামত থাকবেই। কিন্তু, আমি ব্যাক্তিগতভাবে মনে করি, কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাকে মানবজাতির মঙ্গলে কাজে লাগাতে পারলে এটি অবশ্যই আশীর্বাদ। নিয়ন্ত্রিত ব্যাবহার দ্বারা একে অনেক, অনেক সম্ভবনাময় কাজে সফলভাবে ব্যাবহার করা যাবে। তবে হ্যাঁ, এর বিরূপ ও ক্ষতিকর ব্যাবহার থেকে দূরে থাকা, ও কোনও স্বার্থান্বেষী চক্র যেন এত শক্তিশালী ও সম্ভবনাময় খাতকে হীন ও নোংরা স্বার্থে কাজে না লাগাতে পারে, সেদিকে অবশ্যই সচেতন দৃষ্টি রাখতে হবে। 
যেকোনো প্রয়োজনে আমরা আছি
আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ bd tech group
ফেইসবুক পেইজ bd tips tech
ইউটিউব চ্যানেল Youtube channel
Read More »

Sunday, May 19, 2019

বাংলাদেশের সেরা পাঁচ প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি - bdtipstech

বিডি টিপ্স টেকে আপানাদের স্বাগতম।আাশাকরি সবাই ভালো আছেন।বিভিন্ন কারনে সরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে সবার পড়ালেখার সুযোগ হয় না। অনেকে বাধ্য হয়ে আবার কেউ কেউ স্বেচ্ছায় বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনার চেষ্টা করেন। ছাত্রছাত্রীদেরকে অবশ্যই ভর্তির পূর্বে বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে ধারনা থাকা প্রয়োজন। 
BRAC University-bd tips tech
BRAC University-bd tips tech

সেরা ১০ প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি সেরা দশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাংকিং র‍্যাংকিংয়ে বাংলাদেশে সেরা ৬ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪টিই প্রাইভেট প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় র ্যাংকিং প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় র্যাংকিং প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় র্যাংকিং ২০১৮ প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় সার্টিফিকেট বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রেংকিং ২০১৮ প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের খরচ চট্টগ্রাম প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়


বাংলাদেশের সেরা পাঁচটি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির মধ্যে প্রথম স্থানে রয়েছে BRAC University (BRACU)। এটি ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ঢাকার মহাখালিতে এর campus রয়েছে। এই ইউনিভার্সিটিতে ভর্তির ক্ষেত্রে ব্যাপক প্রতিযোগিতার সম্মুখিন হতে হয়। তাই ভর্তি পরিক্ষার ক্ষেত্রে ছাত্র ছাত্রীদেরকে অবশ্যই সন্তোষজনক ফলাফল পেতে হবে।BRAC University (BRACU)এর যোগাযোগের ঠিকানা- 66 Mohakhali, Dhaka 1212, Bangladesh Telephone, Fax and E-mails: Phone: +880-2-9844051-4 (PABX) (Information Desk ext. 4003), +880-2-9853948-9 Fax: +880-2-58810383, +880-2-9856163 w
ebsite: https://www.bracu.ac.bd

North-South-University-bd tips tech
North-South-University-bd tips tech

বাংলাদেশের সেরা পাঁচটি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে North South University (NSU)| এটি বাংলাদেশের প্রথম প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি। এটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৯২ সালে। ঢাকার বসুন্ধরায় এর স্থায়ী campus রয়েছে।North South University (NSU) এর যোগাযোগের ঠিকানা Plot-15, Block-B, Bashundhara, Dhaka-1229, Bangladesh PABX:+880255668200. Fax:+880255668202 Email:registrar@northsouth.edu Website: www.northsouth.edu
Independent-University-bdtipstech
Independent-University-bdtipstech


বাংলাদেশের সেরা পাঁচটি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির মধ্যে তৃতীয় স্থানে রয়েছে Independent University ।এটি ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ঢাকার বসুন্ধরায় এর স্থায়ী campus রয়েছে।এটি তিন একর জমি নিয়ে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। Independent University এর যোগাযোগের ঠিকানা Independent University, Bangladesh Plot 16 Block B, Aftabuddin Ahmed Road Bashundhara R/A, Dhaka, Bangladesh Phone:+88-02-8431645-53, 8432065-76 Fax: +88-02-8431991 E-mail: info@iub.edu.bd  website: http://www.iub.edu.bd

Ahsanullah University of Science and Technology-bd tips tech
Ahsanullah University of Science and Technology-bd tips tech

বাংলাদেশের সেরা পাঁচটি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির মধ্যে চতুর্থ স্থানে রয়েছে Ahsanullah University of Science and Technology (AUST)।এটি ১৯৯৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি ঢাকার তেজগাওয়ে ৫ বিঘা জমির উপর প্রতিষ্ঠিত। এ ভর্তির ক্ষেত্রে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরিক্ষায় নূন্যতম জিপিএ ২.৫/দ্বিতীয় বিভাগ থাকতে হবে। Ahsanullah University of Science and Technology (AUST)এর যোগাযোগের ঠিকানা 141 & 142, Love Road, Tejgaon Industrial Area, Dhaka-1208 Phone: 8870422, 8870416 , Fax: 880-2-8870417 website:http://www.aust.edu

East West University-bdtipstech
East West University-bdtipstech

বাংলাদেশের সেরা পাঁচটি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির মধ্যে পঞ্চম স্থানে রয়েছে East West University (EWU)। এটি ১৯৯৬ সালে ঢাকার মহাখালিতে প্রতিষ্ঠা করা হয়। East West University (EWU) এর যোগাযোগের ঠিকানাA/2, Jahurul Islam Avenue , Jahurul Islam City ,Aftabnagar , Dhaka-1212 , Bangladesh Phone:9858261, 09666775577 Mobile:01755587224 Email:admissions@ewubd.edu info@ewubd.edu Web: http://www.ewubd.edu 

যেকোনো প্রয়োজনে আমরা আছি
আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ bd tech group
ফেইসবুক পেইজ bd tips tech
ইউটিউব চ্যানেল Youtube channel
Read More »

Tuesday, February 12, 2019

অনলাইনে জাতীয় পরিচয়পত্রে তথ্য হালনাগাদ

বিডি টিপ্স টেকে সবাইকে আবারো স্বাগতম।নিত্যদিনের নানা কাজে ভোটার আইডি বা জাতীয় পরিচয়পত্রের ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে। ২০০৮ সালে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন দেশের সব প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিককে প্রথমবারের মতো ছবিসহ জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়। একই সঙ্গে ভোটার তালিকাও হালনাগাদ করা হয়। দেশব্যাপী এই প্রকল্প পরিচালনা এবং তথ্য সংরক্ষণের সময় বেশ কিছু ভুল তথ্য চলে এসেছে বা এই কয়েক বছরে অনেকের ঠিকানাসহ অন্যান্য তথ্যে পরিবর্তন এসেছে।

এত দিন নাগরিকেরা ঢাকার নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের অফিসে যোগাযোগ করে তাঁদের তথ্য হালনাগাদ করতে পারতেন। কিছুদিন হলো ইন্টারনেটে এ কাজটি করা যাচ্ছে। পাশাপাশি নতুন ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করার ব্যবস্থাও রয়েছে এই ওয়েবসাইটে।
বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের মূল ওয়েবসাইট http://www.ecs.gov.bd/ এ গিয়ে ডান পাশের কলাম থেকে এনআইডি অনলাইন সার্ভিসেস লিংক থেকে অথবা সরাসরি services.nidw.gov.bd ঠিকানা থেকে এই অনলাইন সেবাগুলো পাওয়া যাবে। জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য হালনাগাদ করার জন্য নিবন্ধন করে পাসওয়ার্ড সংগ্রহ করতে হবে। নিবন্ধন করার সময় জাতীয় পরিচিতি (এনআইডি) নম্বর, জন্মতারিখ মোবাইল ফোন নম্বর, ই-মেইল, বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানায় উল্লেখিত বিভাগ, জেলা, থানা নাম লিখে নিবন্ধন করতে হবে। এরপর ওই নির্দিষ্ট মোবাইল ফোন নম্বরে একটি ‘অ্যাকাউন্ট অ্যাকটিভেশন কোড’ পাঠানো হবে।
নিবন্ধনের পরবর্তী ধাপে এই কোড লেখা হলে নিবন্ধন সম্পন্ন হবে। পরবর্তী সময়ে এই সাইটে ঢুকতে (লগ–ইন) হলে এনআইডি নম্বর, জন্মতারিখ ও পাসওয়ার্ড লিখতে হবে। এখানে খেয়াল রাখতে হবে যে এনআইডি নম্বর যদি ১৩ সংখ্যার হয়ে থাকে তবে মূল এনআইডি নম্বরের আগে জন্মসালটি লিখতে হবে। লগ–ইন করার পর তথ্য, ঠিকানা, ভোটার এলাকা, ছবি পরিবর্তনের জন্য আলাদা আলাদা অনুচ্ছেদ রয়েছে। এ ছাড়া আইডি কার্ড পুনর্মুদ্রণ এবং নতুন ভোটারের আবেদনের হাল অবস্থা জানারও সুযোগ রয়েছে এই প্যানেলে।
অনলাইনে আবেদনের পাশাপাশি নির্বাচন কমিশন অফিসের মূল কার্যালয় থেকে অথবা স্থানীয় থানা/উপজেলা অফিস থেকে আবেদন করেও হারানো কার্ড আবার উত্তোলন করা অথবা নতুন আবেদন করার ব্যবস্থাও রয়েছে। এ ফরমগুলো পাওয়া যাবে services.nidw.gov.bd/forms ঠিকানায়। নতুন আবেদন ও তথ্য হালনাগাদ-সংক্রান্ত সাধারণ কিছু প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে services.nidw.gov.bd/faq ঠিকানার ওয়েবসাইটে। 
নতুন নতুন খবর জানতে প্রতিদিন ভিজিট করুন বিডি টিপ্স টেক
Read More »

Saturday, January 05, 2019

বাংলাদেশী সকল মোবাইল সিমের গুরুত্বপূর্ণ কিছু কোড

বিডি টিপ্স টেকে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম।আজ আপনাদের সাথে সব মোবাইল কিছু গুরুত্বপূর্ণ কোড শেয়ার করবো।আপনার হয়তো কাজে লাগতেও পারে।
গ্রামীনফোন:
নিজের নাম্বার জানতে:-*১১১*৮*২# অথবা *২#
ব্যালেন্স জানতে:-*৫৬৬#
রিচার্জ করতে:- *৫৫৫* গোপন নাম্বার #
কাস্টমার কেয়ার:- ১২১
ইন্টারনেট ব্যালান্স জানতে:*৫৬৬*১০# অথবা *৫৬৭#
এডভান্স নিতে:*১০১০*১#

এয়ারটেল:-
নিজের নাম্বার জানতে:-*১২১*৬*৩#
ব্যালেন্স জানতে:-*৭৭৮#
রিচার্জ করতে:-*৭৮৭* গোপন নাম্বার#
কাস্টমার কেয়ার:-৭৮৬
ইন্টারনেট ব্যালেন্স জানতে:-*৭৭৮*৩৬#


বাংলালিংক:-
নিজের নাম্বার জানতে:-*৫১১#
নিজের নাম্বার জানতে:-*৬৬৬#
ব্যালেন্স জানতে:-*১২৪#
রিচার্জ করতে:-*১২৩* গোপন নাম্বার #
কাস্টমার কেয়ার:- ১২১
ইন্টারনেট ব্যালান্স জানতে:*২২২*৩#
এডভান্স নিতে:-*৮৭৪#


রবি:-
নিজের নাম্বার জানতে :-*১৪০*২*৪#
ব্যালেন্স জানতে:-*২২২#
রিচার্জ করতে:-*১১১* গোপন নাম্বার #
কাস্টমার কেয়ার : ১২৩
ইন্টারনেত ব্যালান্স:-*৮৪৪৪*৮৮#


টেলিটক:-
নিজের নাম্বার জানতে:- মেসেজ অপশনে গিয়ে লিখুন TAR।পাঠিয়ে দিন ২২২ নাম্বারে(চার্জ প্রযোজ্য)
ব্যালেন্স জানতে:-*১৫২#
রিচার্জ করতে *১৫১* গোপন নাম্বার #
কাস্টমার কেয়ার : ১২১

সিটিসেল:-
ব্যালেন্স চ্যাক:-*৮৭৪
নিজের নাম্বার জানতে :- MDN লিখে পাঠিয়ে দিন ৭৬৭৮ নাম্বারে।

কাস্টমার কেয়ার :- ১২১


ভাল লাগলে কমেন্ট শেয়ার করতে ভুলবেন না।
Read More »

Tuesday, January 01, 2019

জেনে নিন আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের(NID CARD) নম্বরের গোপন সংকেত বা কোডের অর্থ

বিডি টিপ্স টেকে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম। আশা করি ভালো আছেন।আমি আপনাদের মাঝে মজার একটি বিষয় নিয়ে হাজির হয়েছি।

বাংলাদেশী হিসাবে আমাদের অনেকেরই জাতীয় পরিচয় পত্র (National ID Card) আছে। অনেকে এটাকে ভোটার আইডি কার্ড হিসাবে বলেন যেটা সম্পুর্ণ ভুল।


এটিও পড়ুন facebook news feed হবে এবার নিজের মত

এটা ন্যাশনাল আইডি কার্ড বা জাতীয় পরিচয় পত্র।

আপনারা দেখবেন এটার নীচে লাল কালি দিয়ে লেখা ১৩ সংখ্যার একটা নম্বর আছে যাকে আমরা আইডি নম্বর হিসাবে জানি। কিন্তু এই ১৩ সংখ্যার মানে কি? আসলে আমরা অনেকেই এই সংকেত/কোডগুলো জানিনা। আবার অনেকের জানার আগ্রহ থাকলেও কোথাও হয়ত হেল্প পাইনি। যাইহোক এত চিন্তার কারন নাই। এবার উক্ত সমাধান নিয়েই আজকের পোস্ট। যারা জানেন না তারা নিজেই এবার চোখ বুলিয়ে নিন। আশা করি নিজে উপকৃত হবেন এবং অন্যকে জানানোর চেষ্টা করবেন।

বাংলাদেশী হিসাবে আমাদের অনেকেরই জাতীয় পরিচয় পত্র (National ID Card) আছে। অনেকে এটাকে ভোটার আইডি কার্ড হিসাবে বলেন যেটা সম্পুর্ণ ভুল। এটা ন্যাশনাল আইডি কার্ড বা জাতীয় পরিচয় পত্র।

আপনারা দেখবেন এটার নীচে লাল কালি দিয়ে লেখা ১৩ সংখ্যার একটা নম্বর আছে যাকে আমরা আইডি নম্বর হিসাবে জানি। কিন্তু এই ১৩ সংখ্যার মানে কি? আসলে আমরা অনেকেই এই সংকেত/কোডগুলো জানিনা। আবার অনেকের জানার আগ্রহ থাকলেও কোথাও হয়ত হেল্প পাইনি। যাইহোক এত চিন্তার কারন নাই। এবার উক্ত সমাধান নিয়েই আজকের পোস্ট। যারা জানেন না তারা নিজেই এবার চোখ বুলিয়ে নিন। আশা করি নিজে উপকৃত হবেন এবং অন্যকে জানানোর চেষ্টা করবেন।



১) এর প্রথম ২ সংখ্যা – জেলা কোড। ৬৪ জেলার আলাদা আলাদা কোড আছে। ঢাকার জন্য এই কোড ২৬।

২) পরবর্ত্তি ১ সংখ্যা – এটা আর এম ও (RMO) কোড।
সিটি কর্পোরেশনের জন্য – ৯
ক্যান্টনমেন্ট – ৫
পৌরসভা – ২
পল্লী এলাকা – ১
পৌরসভার বাইরে শহর এলাকা – ৩
অন্যান্য – ৪

৩) পরবর্ত্তি ২ সংখ্যা – এটা উপজেলা বা থানা কোড

৪) পরবর্ত্তি ২ সংখ্যা – এটা ইউনিয়ন (পল্লীর জন্য) বা ওয়ার্ড কোড (পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশনের জন্য)

৫) শেষ ৬ সংখ্যা – আই ডি কার্ড করার সময় আপনি যে ফর্ম পূরণ করেছিলেন এটা সেই ফর্ম নম্বর।
বর্তমানে আবার ১৭ ডিজিট ওয়ালা আইডি কার্ড দেয়া হচ্ছে যার প্রথম ৪ ডিজিট হচ্ছে জন্মসাল!

এটিও পড়ুন nokia mobile এর কিছু প্রয়োজনীয় কোড

আশা করি বুঝতে পেরেছেন।উপকৃত হলে কমেন্ট করে জানাবেন।ধন্যবাদ।
Read More »

Thursday, December 27, 2018

youtube এর কয়েকটি মজার তথ্য জেনে নিন


বিডি টিপ্স টেকে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম।বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউব। জনপ্রিয় এই সাইটের বেশ কিছু মজার তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

এটিও পড়ুন জেনে নিন আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের(NID CARD) নম্বরের গোপন সংকেত বা কোডের অর্থ

১)২০০৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে যাত্রা শুরু করে ইউটিউব। তিন প্রতিষ্ঠাতা শ্যাদ হার্লে, স্টিভেন চ্যান ও জাওয়াদ করিম। তিনজনই একসাথে কাজ করতেন অনলাইন লেনদেন প্ল্যাটফর্ম পেপ্যালে। কিন্তু ঝামেলা বাঁধে যখন পেপ্যালকে কিনে নেয় অনলাইনে নিলাম ওয়েবসাইট ইবে। তিনজনই চাকরি হারান। চাকরি যাওয়ার পর তাঁরা ভাবতে থাকেন নতুন কী করা যায়। এই সময় তাঁদের মাথায় আসে ইউটিউবের আইডিয়া। সেটা নিয়েই মাঠে নামেন তাঁরা।

২)আমাদের কাছে ভিডিও শেয়ারিং সাইট হিসেবে জনপ্রিয় ইউটিউব। তবে শুরুতে কিন্তু এমন হওয়ার কথা ছিল না। তিন উদ্যোক্তা একটি অনলাইন ভিডিও ডেটিং সাইট বানাতে চেয়েছিলেন। যেখানে একজন ব্যবহারকারী নিজের সম্পর্কে ভিডিও বানিয়ে আপলোড করতে পারবেন, একই সাথে এ রকম অসংখ্য ভিডিও থেকে খুঁজে নিতে পারবেন নিজের পছন্দের মানুষটিকে!

৩)ইউটিউবের সহপ্রতিষ্ঠাতা জাওয়ান করিম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত। বাংলাদেশি বাবা ও জার্মান মায়ের সন্তান জাওয়াদের জন্ম জার্মানিতে। যুক্তরাষ্ট্রে লেখাপড়া শেষে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন সেখানে। ইউটিউবে প্রথম ভিডিওটি আপলোড করেন জাওয়াদ নিজেই। মি অ্যাট দ্য জু (Me at the Zoo) শিরোনামের এই ভিডিওতে দেখা যায় জাওয়াদের চিড়িয়াখানা ভ্রমণের খানিক অভিজ্ঞতা। মাত্র ১৯ সেকেন্ডের এই ভিডিও এখন পর্যন্ত দেখা হয়েছে প্রায় ২৩ মিলিয়ন বার। প্রথম ভিডিও বলে কথা!

৪)অ্যালেক্সা রেটিং অনুযায়ী বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ভিজিট করা ওয়েবসাইটের তালিকায় ইউটিউবের অবস্থান তৃতীয়। ইউটিউবের উপরে থাকা দুটি ওয়েবসাইট যথাক্রমে ফেসবুক ও গুগল। তবে মজার ব্যাপার ইউটিউব কোনো সার্চ ইঞ্জিন না হওয়া সত্ত্বেও এখানে যতবেশি ‘সার্চ’ করা হয়ে থাকে তা বিং, আস্কডটকম ও ইয়াহুর মতো সার্চ ইঞ্জিনগুলোর মিলিত সার্চের চাইতে অনেক বেশি। সার্চের পরিমাণ হিসাব করলে গুগলের পরই ইউটিউবের অবস্থান।

৫)ইউটিউবের বিশালতা বোঝান যেতে পারে একটি ছোট পরিসংখ্যান দিয়ে। প্রতি সেকেন্ডে ইউটিউবে আপলোড হচ্ছে প্রায় দেড় ঘণ্টার সমপরিমাণ ভিডিও। আর একটু বড় করে বললে প্রতি মিনিটে প্রায় ১০০ ঘণ্টা অথবা প্রতি ঘণ্টায় ২৫০ দিনের সমপরিমাণ! বছর শেষে যার পরিমাণ দাঁড়ায় ৫৮ শতাব্দীকাল! ইউটিউবের সব ভিডিও দেখে ফেলার কোনো পরিকল্পনা নিয়ে থাকলে মাথা থেকে সে ভূত নামিয়ে ফেলাটাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

৬)ইউটিউবের সবচেয়ে বেশিবার দেখা ভিডিওটি দক্ষিণ কোরিয়ান সংগীতশিল্পী সাইয়ের ‘গ্যাংনাম স্টাইল’ গানের মিউজিক ভিডিও। ২০০ কোটিরও বেশি বার দেখা হয়েছে ভিডিওটি। এর আগে এই অবস্থান ছিল কানাডিয়ান পপ শিল্পী জাস্টিন বিবারের দখলে। ‘বেবি’ শিরোনামের তাঁর গানটি এখন পর্যন্ত দেখা হয়েছে প্রায় ১১৬ কোটি বার।

৭)আপনার কাছে যদি পর্যাপ্ত অবসর থাকে তবে দেখে ফেলতে পারেন ইউটিউবের সবচেয়ে বেশি ব্যাপ্তির ভিডিওটি। এক-দুই দিনে কিন্তু হবে না, গুনে গুনে ২৫ দিন লাগবে পুরো ভিডিও দেখে শেষ করতে! ৫৯৬ ঘণ্টা ৩১ মিনিট ২০ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি বানিয়েছেন জোনাথান হেনড্রিক নামের একজন অ্যাপস ডেভেলপার। কী আছে এই অতিশয় লম্বা ভিডিওতে? জানতে সময় করে বসে পড়ুন একদিন!

এটিও পড়ুন facebook news feed হবে এবার নিজের মত

৮)ইউটিউব কিন্তু এখন আর নিছক বিনোদনের কোনো সাইট নয়। জীবিকা হিসেবে কিন্তু অনেকেই ‘ইউটিউবার’ পেশাকে বেছে নিচ্ছেন। বিচিত্র ধরনের ভিডিও নির্মাণ ও আপলোডের মাধ্যমেই আয় করা সম্ভব ইউটিউব থেকে। সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান বলছে সারা পৃথিবীর প্রায় ৩০টি দেশের অন্তত ১০ লাখ ‘ইউটিউবার’ আয় করছেন শুধু ইউটিউবে সক্রিয় থেকে, আর এই ১০ লখের প্রায় অর্ধেকেরই একমাত্র পেশা এটি। বলাবাহুল্য, এই সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে।

৯)প্রতিবছর এপ্রিল ফুল পালন করে ইউটিউব। ব্যবহারকারীদের বোকা বানাতে বিভিন্ন রকম আয়োজন করে তারা। ২০০৯ সালের পহেলা এপ্রিলের কথাই ধরা যাক। ইউটিউব সেদিন পুরো ওয়েবসাইটটিকেই উল্টো করে দিয়েছিল। ভিডিও দেখতে গিয়ে বেশ ঘাম ছুটে গিয়েছিল সবার!

১০)ইউটিউব প্রতিষ্ঠার মাত্র এক বছরের মাথায় টেক জায়ান্ট গুগল কিনে নিয়েছিল ইউটিউবকে। আর এ জন্য গুগলকে গুনতে হয়েছিল ১৬৫ কোটি ডলার। ইউটিউবকে কিনে গুগল অবশ্যই ভুল করেনি। শুধু ২০১৩ সালেই ইউটিউব থেকে গুগল আয় করে প্রায় ১৫০ কোটি ডলার।
Read More »

Sunday, July 22, 2018

জানুন একজন মহান ব্যক্তি সমন্ধ্যে যিনি ৩০০ এর অধিক মানুষের জীবন বাঁচিয়েছেন

বিডি টিপ্স টেকে আপনাদের স্বাগতম।আশাকরি আপনারা সবাই ভাল আছেন।আজ আপনাদের সাথে এমন একজন ব্যাক্তির সাথে পরিচয় যিনি তার জীবনে ৩০০এর অধিক মানুষের জীবন বাঁচিয়েছেন এবং তিনি এখনও তার কার্যক্রমটি চালিয়ে যাচ্ছেন।
 
চেন সি-bd tips tech
চেন সি-bd tips tech
লোকটির নাম হচ্ছে চেন সি।তিনি চীনের অধীবাসী।তিনি তার জীবনে সপ্তাহ ছুটির দিন নানজিং ইংযে নদীর ব্রীজে কাটাতেন এবং সেখানে যারা নদীতে ঝাপ দিয়ে আত্মহত্যা করতে যেত তাদের কে বাঁচাতেন।তিনি ৩০০ এর অধিক মানুষকে আত্মহত্যা থেকে বাঁচিয়েছেন।

চীনের নানজিং ইংযে নদীর ব্রীজ চীনের একটি বিখ্যাত ব্রীজ এবং বিশ্বের এক নাম্বার সুইসাইড প্লেস হিসেবে পরিচিতি লাভ করে।১৯৬৮ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত পরিসংখ্যান থেকে দেখা যায় যে,২০০০ এরও অধিক মানুষ নানজিং ইংযে নদীর ব্রিজে আত্মহত্যা করে।
 
চেন সি ৩০০ এর অধিক মানুষকে বাঁচিয়েছিলেন -bd tips tech
চেন সি ৩০০ এর অধিক মানুষকে বাঁচিয়েছিলেন -bd tips tech
প্রত্যেক সপ্তাহ ছুটির দিনে চেন সি ২৫ কি. মি.দূরে নানজিং ব্রীজে সকাল ৭.৩০ মিনিটে পোছাতেন।সে তার মটরসাইকেল কিংবা পায়ে হেটে ব্রীজ পর্যবেক্ষণ করতেন।যখনই চেন সি লক্ষ্য করতো যে কেউ আত্মহত্যা করতে যাচ্ছে,তখন তিনি লোকতিকে থামাতেন এবং বেঁচে থাকার জন্য অনূপ্রাণিত করতেন।কারো সাহায্য প্রয়োজন হলে তার সাথে যোগাযোগ করার জন্য তিনি তার ফোন নাম্বার ব্রীজ্রে লিখে গেছেন।

তার এই কর্মকান্ডের জন্য চেন সি নানজিং এর দেবদূত হিসেবে পরিচিতি লাভ করে।সত্যিই নানজিং এর মত মানুষ গুলো আমাদের অনপ্রাণিত করে।
 

যেকোনো প্রয়োজনে আমরা আছি
আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ facebook group
ফেইসবুক পেইজ facebook page
ইউটিউব চ্যানেল Youtube
Read More »

Get post by Email

copyright 2014-2020@bdtipstech DMCA.com Protection Status