ads by bdtipstech

রবিবার, অক্টোবর ১৪, ২০১৮

ল্যাপটপের ব্যাটারি ঠিক রাখার কিছু টিপ্স যেনে জিন

bd tech blog এ আপনাদের স্বাগতম। আশা করি সবাই ভাল আছেন।
আমরা যারা ল্যাপটপ ইউস করি তারা সব সময় কিছু কমন চিন্তায় থাকি।



১। এই ব্যাটারি কি ভাল?

২। আমি যেভাবে ইউস করতেছি সেটা কি এর আয়ু কমাচ্ছে?

৩। কিভাবে আয়ু ধরে রাখবো?

৪ কিভাবে বুঝবো ব্যাটারি চেঞ্জ করার দরকার আছে কিনা

 
ল্যাপটপের ব্যাটারির যন্ত নিন-বিডি টিপ্স টেক
ল্যাপটপের ব্যাটারির যন্ত নিন-বিডি টিপ্স টেক



কিভাবে ল্যাপটপের ব্যাটারি ঠিক রাখবেন,ল্যাপটপের ব্যাটারির যত্ন রাখার উপায়,ল্যাপটপের যত্ন রাখার উপায়,ল্যাপটপ ব্যাটারি কিভাবে পরিবর্তন করা লাগে।



প্রথম কথা হল ব্যাটারী সময়ের সাথে সাথে আয়ু কমবে, এটা হবেই। কিন্তু এটা অনেক ধীরে ধীরে হয়। আবার অনেকের তারাতারিও হয়। কিন্তু এটা ইউস করার উপর অনেক টা নির্ভর করে। যা আমরা নিজেই নিয়ন্ত্রন করতে পারি। তা জন্য আমাদের কিছু জিনিস বুজতে হবে।

ল্যাপটপের চার্জঃ

আমাদের মনে রাখতে হবে ল্যাপ্টপের চার্জ নির্ভর করে mWh এর উপর, মিলি এম্পিয়ার এর উপর নয়।

আবার একটা ব্যাটারীর ধারন ক্ষমতা কতটুকু আছে তাও এর উপর নির্ভর করে। সেটা আমি এখন দেখাবো কিভাবে বুজবেন যে আপনার ল্যাপ্টপের ব্যাটারীর বর্তমান ধারন ক্ষমতা কত।

এটা মেনুয়ালি বের করা যায়। কিন্তু এই সফটওয়্যার দিয়েও দেখা যা। প্রথমে battery care সফটওয়্যার টি ডাউনলোড করে ওপেন করুন।
তাহলে নিচের চিত্রের মত আসবে।

এখানেই সব ইনফরমেশন পাবেন।

designed Capacity মানে হল এই ব্যাটারির বানানোর সময় এর ধারন ক্ষমতা এটাই ছিল

Full charged capacity মানে হল বর্তমানে চার্জ ফুল হলে কত চার্জ ধারন হয়।

current capacity value হল বর্তমান চার্জ

battery wear level হল আপনার বর্তমান ব্যাটারির ধারন ক্ষমতা কত, এটাই সবথেকে গুরুত্বপুর্ন। এটা যত বেশী আপনার ব্যাটারী তত ভাল আছে। নতুন ব্যাটারীর ক্ষেত্রে এটা ১০০% থাকে।

কিভাবে ব্যাটারী ভাল রাখবেন?

কিছু টিপস পালন করলে ব্যাটারী ভাল থাকে।

১। তাপমত্রা ঠিক রাখা, এটা করার জন্য আপনার এই সফটওয়্যার দরকার হবে। এটা দিয়ে বুঝবেন কত তাপমাত্রা আছে, বেশী উত্তপ্ত হলে এটা দেখায় দিবে, তাই বেশী কিছুর দরকার নাই শুধু ইন্সটল করলেই হবে।

২। সব সময় ফুল চার্জ রাখবেন, লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারী সব সময় ফুল চার্জ রাখা ভাল, চার্জ ফুল থাকার পরও প্লাগ ইন করে চালান। অনেকেই চার্জ শেষ করে আবার ফুল আবার চার্জ আবার ফুল করে। এতে ব্যাটারীর ধারন ক্ষমতে কমে যায়।

৩। কিছুদিন পর পর ব্যাটারী ক্যালিবারেশন করতে হয়। একটু আগে যে সফটওয়্যার দিয়েছি তা ইনস্টল করা থাকলেই বুঝবেন কখন দেয়া লাগবে। আবার নিয়মটাও সেখানে দেয়া আছে। এতে battery waer level বাড়ে।



তো আজ এই পর্যন্তই। ভাল থাকবেন সবাই। আমার পরের টিউনে লিখবো কিভাবে ব্যাটারী ক্যালিবারেশন করার লাগে। ভাল থকবেন সবাই।
  যেকোনো প্রয়োজনে আমরা আছি
আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ facebook group
ফেইসবুক পেইজ facebook page
ইউটিউব চ্যানেল Youtube

২টি মন্তব্য:

যদিও এতটুকু উপকৃত হন তাহলে একটি কমেন্ট করে যাবেন।আপনার একটি কমেন্ট আমাদের কাছে অনেক মূল্যবান...

Get post by Email

copyright 2014-18@bdtipstech DMCA.com Protection Status