ads by bdtipstech

মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৫, ২০১৯

কম্পিউটার কেনার আগে যে বিষয়গুলি খেয়াল রাখতে হয়

বিডি টিপ্স টেকে আপনাদের স্বাগতম। একটি কম্পিউটার বর্তমান সময়ে একটি গুরুত্বপূর্ন অনুসঙ্গ । বর্তমান যুগ হলো তথ্য প্রযুক্তির যুগ । আর এ যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গেলে তথ্য প্রযুক্তির সাথে তাল মেলানে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় । আর ক্ষেত্রে এর প্রধান এবং একমাত্র বাহক হলো কম্পিউটার । আর এ কম্পিউটার কিনতে হলে একটু যাচাই বাছাই করা প্রয়োজন , কেননা একটুখানি ভুল হলে অনেক দাম দিয়ে কেনা একটি কম্পিউটার খুব তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যাবার সম্ভাবনা থাকে । তাই একটি কম্পিউটার কেনার সময়ে খেয়াল রাখতে হবে যেন— 
কম্পিউটার কেনার আগে যে বিষয়গুলি খেয়াল রাখতে হয়-বিডি টিপ্স টেক
কম্পিউটার কেনার আগে যে বিষয়গুলি খেয়াল রাখতে হয়-বিডি টিপ্স টেক
কম্পিউটারের দাম 2018 প্রসেসরের দাম ২০১৮ ডেস্কটপ কম্পিউটারের দাম ২০১৮ কম্পিউটার যন্ত্রাংশের দাম ২০১৮ কম্পিউটার কেনার টিপস কম্পিউটার যন্ত্রাংশের দাম 2018 পিসির দাম কম দামে কম্পিউটার কম্পিউটার কেনার আগে যা জানা প্রয়োজন ডেস্কটপ কম্পিউটারের দাম ২০১৮

১। পরিচিত দোকানঃ পরিচিত মানুষ সাধারণতঃ ধোকা দিতে পারে না । তাই কম্পিউটার কেনার আগে পরিচিত দোকান থেকে কিনলে ঠকার সম্ভাবনা খুব কম থাকে । পরিচিত মানুষ সাধারণতঃ ভালোটিই দিয়ে থাকে ।

 ২। কেসিং (Casing ) আগে দর্শনধারী পরে গুণাবিচারী । কোন জিনিস যদি দেখতেই ভালো না হয় , তবে সেটা ব্যবহার করতেও ভালো লাগার কথা নয় । তাই নতুন কম্পিউটার কেনার আগে ভালো মানের কেসিং আছে কি না প্রথমেই সেটা দেখে নেওয়া উচিত । 

৩। মাদার বোর্ড/ মেইন বোর্ড (Motherboard) : মাদার বোর্ড  কম্পিউটরের প্রধান চালিকা শক্তি । একটা কম্পিউটারের প্রধান নিয়ন্ত্রক বলতে আমরা এই মাদারবোর্ডকেই বুঝে থাকি । কারণ এই মাদার বোর্ডের উপরেই সকল উপাদান গুলো সন্নিবেশিত থাকে । বাজারে অনেক ধরনের মাদারবোর্ড পাওয়া যায় এর মধ্যে Intel, GigaByte, Asus খুব ভালো মানের মাদার বোর্ড ।

 ৪। মনিটর (Monitor ) মনিটর দ্বারা কম্পিউটারের সবকিছু আউটপুট পাওয়া যায়। তাই কম্পিউটারে মনিটরটি ভালো মানের হওয়া জরুরী ।

 ৫। র‍্যাম ( RAM): RAM হলো কম্পিউটারের অস্থায়ী স্মৃতি । RAM উপর একটি কম্পিউটারে মূল গতি নির্ভর করে । তাই একটি কম্পিউটারের RAM গতি যত বেশি হবে তার উপরই মুলত কম্পিউটারের সামগ্রিক গতি নির্ভর করে । বর্তমানে Corsair, G.Skill, Micron বেশ ভালো মানের RAM । 

৬। হার্ড ডিস্ক ড্রাইভ( Hard Disk Drive একটি হার্ডডিস্ক ড্রাইভের ভিতর সাধারণত চৌম্বকীয় পদ্ধতিতে ডেটা সংরক্ষিত থাকে । তাই হার্ডডিস্কের ডেটা ধারণ ক্ষমতা বেশি হলে কম্পিউটারে গতি বৃদ্ধি পায় । বাজারে সাধারণতঃ ১৬০ GB থেকে শুরু করে ৩ TB পর্যন্ত হার্ড ডিস্ক ড্রাইভ পাওয়া যায় ।

 ৭। সিডি/ ডিভিডি( CD /DVD ): সিডি/ডিভিডি প্লেয়ার সঠিকভাবে কাজ করছে কিনা সেটা দেখে নিতে হবে । তাছাড়া ভার্সনগুলোও যেন আপডেটেট ভার্সন হয় সেদেকে নজর রাখা জরুরী ।

 ৮। কী বোর্ড( Key Board ) কী বোর্ড খুব ভালো মানের না হলে কাজ করে কোন সুবিধা পাওয়া যায় না কারণ কী বোর্ড দিয়েই কম্পিটারের বেশিরভাগ কাজ সম্পন্ন করা হয় । তাই ভালো মানের কী বোর্ড কিছু ব্রান্ডের নাম হলো A4Tech, Deluxe, Mercury এছাড়াও মাউস( Mouse), স্পিকার( Speaker ), ইউপিএস( UPS) প্রভৃতি বিষয়গুলোও খুব সতর্কতার সাথে নজরে রাখতে হবে । 
যেকোনো প্রয়োজনে আমরা আছি
আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ bd tech group
ফেইসবুক পেইজ bd tips tech
ইউটিউব চ্যানেল Youtube channel
Read More »

সোমবার, জানুয়ারী ১৪, ২০১৯

জিডি কেন করবেন এবং কিভাবে করতে হয়

বিডি টিপ্স টেকে আপনাকে স্বাগতম। জিডি কেন করবেন এবং কিভাবে করতে হয় রহিম একজন ছাত্র। ঢাকা থেকে যশোর আসার পথে তার সকল একাডেমিক সার্টিফিকেট হারিয়ে গেছে। এখন সে তো মহা টেনশনে। কি করবে এখন!!! তার দীর্ঘ ২৫ বছরে পড়াশুনার প্রমাণ তো ঐ সার্টিফিকেটগুলোই । চিন্তায় চিন্তায় আধমরা অবস্থা তার! এই অবস্থায় একজন ভদ্রলোক এসে তাকে উপদেশ দিল সার্টিফিকেটগুলো বোর্ড থেকে উঠায়ে নেওয়ার জন্য। তবে সর্বপ্রথমে তাকে থানায় একটা জিডি করতে বললো। তো এই জিডি টা কি? আর কিভাবেই বা এটা করতে হয়? চলুন জেনে নেওয়া যাক - জিডি কি এবং কেন করবেন? জিডি শব্দটি জেনারেল ডায়েটি এর সংক্ষিপ্ত রুপ। কোনো অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটলে বা কোনো মূল্যবান কিছু হারিয়ে গেলে সেটা লিখিত ভাবে থানায় জানাতে হয়। এরপর থানার ডিউটি অফিসার সেটি নথিভুক্ত করেন। এটাকেই জিডি বলা হয়। কিভাবে জিডি করতে হয়? জিডি করতে হলে আপনাকে আপনার নিকতস্থ থানায় যেতে হবে। এরপর ডিউটি অফিসার বরাবর একটা দরখাস্ত লিখতে হবে। 
জিডি কেন করবেন এবং কিভাবে করতে হয়
জিডি কেন করবেন এবং কিভাবে করতে হয়
অনলাইনে জিডি করার নিয়ম জিডি কি মামলা  জিডি করবেন কীভাবে জিডি ও কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য থানায় সাধারণ ডায়েরি কেন করবেন, কিভাবে জেনারেল ডায়েরি (জিডি) কী, কেন, কোথায় এবং কিভাবে করবেন

দরখাস্তের ফরমেট টা নিচের মত হবে। 

বরাবর,
 অফিসার ইনচার্জ, 
কলারোয়া থানা সাতক্ষীরা। 
বিষয় : সাধারণ ডায়েরি করণ প্রসঙ্গে। 
যথাবিহীত সম্মান প্রদর্শন পূর্বক বিনীত নিবেদন এই যে, আমি …………………, পিং-……………, সাং-…………, থানা-…………, জেলা-…………।অদ্য থানায় হাজির হইয়া আমি এই মর্মে জানাইতেছি যে, গত ইং ০৩/০১/২০১৯ তারিখ সকাল আনুমানিক ১০.০০ ঘটিকার সময় আমি বাড়ি হইতে কলারোয়া শহরে আসার পথে কাছে থাকা নিজ নামীয় জাতীয় পরিচয় পত্র যাহার নং-19451258748458930 পথিমধ্যে কোথাও পড়িয়া হারাইয়া যায়। অনেক খোজাখুজি করিয়া উক্ত জাতীয় পরিচয় পত্রটির সন্ধান পাওয়া যায় নাই। খোজাখুজি অব্যাহত আছে। 
অতএব , মহোদয় উক্ত বিষয়টি আপনার থানায় সাধারণ ডায়েরি ভুক্ত করিতে একান্ত মর্জি হয়। 
বিনীত
নাম 
মোবাইল নাম্বার                                                                              স্বাক্ষর 


এরপর এটার একটা ফটোকপি সহ মোট ২ (দুই) কপি ডিউটি অফিসারকে দিলে তিনি সিল সই করে আপনাকে এককপি দিয়ে দেবেন আর তিনি এক কপি রেখে দেবেন। আপনার কাজ শেষ। 
যেকোনো প্রয়োজনে আমরা আছি
আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ bd tech group
ফেইসবুক পেইজ bd tips tech
ইউটিউব চ্যানেল Youtube channel
Read More »

রবিবার, জানুয়ারী ১৩, ২০১৯

ছবিকে ব্যবহার করুন password হিসেবে

(bd tips tech)বিডি টিপ্স টেকে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম।আশাকরি সবাই ভাল আছেন। উইন্ডোজ ৮ অপারেটিং সিস্টেমে পাসওয়ার্ড হিসেবে ছবি ব্যবহার করা যায়। নিরাপত্তার জন্য আগে লিখিত পাসওয়ার্ড ব্যবহারের ব্যবহার ছিল, এখন ছবিও যুক্ত হলো।
এ ক্ষেত্রে ছবির বৃত্ত, সরলরৈখিক অবস্থান নির্ধারণ করে সেটিকে পাসওয়ার্ড হিসেবে ঘোষণা করা যাবে। এটি করতে Windows charm বা স্টার্ট মেনুতে গিয়ে settings থেকে Change PC settings থেকে Users-এ ক্লিক করুন।

এটিও পড়ুনwindows 10 এ যদি start nenu কাজ না করে

এরপর Sign-in options থেকে Create a picture password-এ ক্লিক করে ইউজার পাসওয়ার্ড দিন। এখানে কম্পিউটার থেকে এমন একটি ছবি নির্বাচন করে দিতে হবে যেটিতে অনেক লুকানো অবস্থান আছে। পিকচার পাসওয়ার্ডের উইন্ডো খুলে গেলে লুকানো অবস্থান দেখে দিতে হবে। Choose picture নির্বাচন করলে Set up your gesture উইন্ডো চালু হলে এখানে মাউসের কারসর দিয়ে যে যে অবস্থানকে পাসওয়ার্ড হিসেবে রাখতে চান, সেটি নির্বাচন করে দিন। আপনি ছবির প্রতিটি অংশকে বৃত্ত বা সরলরেখা এঁকে রেখে দিতে পারেন। তিন ধাপে এটি শেষ করে Use this picture বোতাম চাপুন।
পরের উইন্ডোতে নির্বাচন করা অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার জন্য আবার দেখাবে। ভালো করে অবস্থান চিনে নিয়ে Finish বোতাম চাপুন। পরবর্তী সময়ে লগইনের সময় নির্বাচন করা অবস্থান দেখে দিলেই কম্পিউটারে চালু হবে।

এটিও পড়ুনstart menu থেকেই ওয়েবে তথ্যের খোঁজ

পিকচার পাসওয়ার্ড রিমুভ করতে চাইলে Sign-in options থেকে Create a picture password-এর পাশের Remove বোতাম চাপতে হবে। পোস্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেননা।
Read More »

শুক্রবার, জানুয়ারী ১১, ২০১৯

কিভাবে WHATSAPP এর সকল তথ্য googGle Drive এ backup রাখবেন??

(bd tips tech) বিডি টিপ্স টেকে আপনাদের স্বাগতম।আপনি হয়তো আর সবার মতো নিয়মিত WhatsApp ব্যবহার করেন? কোন কারনে যদি আপনার এন্ড্রয়েড মোবাইল থেকে হোয়্যাটসএপ্স ডিলিট হয়ে যায় তাহলে থেকে তথ্য গুলি ফেরত পেতে পারেন।আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো কি করে WhatsApp এর সকল তথ্য আপনি গুগল ড্রাইভে সিঙ্ক্রনাইজ করে রাখবেন।



তো চলুন শুরু করা যাক-

* শুরুতে আপনার WhatsApp অ্যাপটি ওপেন করুন, এবার Menu Button থেকে Settings অপশনে তারপর Chats and calls যেয়ে Chat backup অপশনে ক্লিক কররুন।

এটিও পড়ুন কিভাবে sms এর মাধ্যমে sim number registration করবেন

* ঠিক কখন কখন ব্যাকআপ রাখতে চান সেটি নির্বাচন করুন এবং ব্যাকআপ টু গুগল ড্রাইভ সিলেক্ট করুন।



* ঠিক তারপরেই আপনাকে জিমেইল সিলেক্ট করার জন্য জিজ্ঞেসা করা হবে, সেটি করুন।

* এবার নেট কানেকশন নির্বাচন করে ব্যাকআপ করে নিন। এবং আপনার দেয়া সময় মতো গুগল নিজেই তারপর থেকে অটো ব্যাকআপ রাখবে।

*** এখন কথা হল আপনার ব্যাকআপ করা ফাইল বা ডাটা গুলা গুগল থেকে রিস্টোর করবেন কিভাবে?-

* আপনার ব্যবহৃত সেই একই ইমেইল আইডি পুরনায় অ্যাড করুন যেটা ব্যাকআপ রাখার সময় ব্যবহার করেছিলেন।

* এবার পুনরায় WhatsApp রিইন্সটল করুন। আপনার ফোন নাম্বার সঠিক ভাবে ভেরিফাই হবার পর তারা আপনার কাছে জিজ্ঞাসা করবে যে, আপনি পুনরায় ব্যাকআপ রিস্টোর করতে চান কিনা।

এটিও দেখুন কিছু GooGle টিপ্স জেনে নিন

* যদি করেন তবে তারপর কিছু সময় দিন। এবার দেখুন আপনার সকল ছবি, চ্যাট ম্যাসেজ, ইত্যাদি ডাটা রিস্টোর হয়ে গেছে।

নোটঃ বর্তমানে নতুন এই ফিচারটি শুধুমাত্র 2.12.303 তম ভার্সনে কাজ করছে। যাদের কাছে এই ভার্শনটি নেই তারা চাইলে গুগল প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।
Read More »

বুধবার, জানুয়ারী ০৯, ২০১৯

Subject Review-Applied Mathematics কেন পড়বেন এপ্লাইড ম্যাথ

প্রতিষ্ঠার ক্রমানুসারে নোবিপ্রবির ষষ্ঠ ডিপার্টমেন্ট এপ্লাইড ম্যাথমেটিক্স।২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষে 'ম্যাথমেটিক্স' ডিপার্টমেন্ট হিসেবে যাত্রা শুরুর এক বছরের মাথায় তা 'এপ্লাইড মাথমেটিক্স' নাম ধারন করে।বর্তমানেএটি নোবিপ্রবির অন্যতম ওয়েল ফারনিশড ডিপার্টমেন্ট।এই ডিপার্টমেন্টের আছে নিজস্ব ফ্লোর,পর্যাপ্ত ক্লাস রুম,৭ জন হাইলি কোয়ালিফাইড টিচার(এছাড়া বেশ ক’জন নতুন টিচার নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে) এবং সুসজ্জিত ল্যাব।এই তো গেল ডিপার্টমেন্ট হিসেবে নোবিপ্রবিতে এপ্লাইড ম্যাথের অবস্থা।এবার আসো জেনে নেয়া যাক সবজেক্ট হিসেবে এপ্লাইড ম্যাথের অবস্থান।
এপ্ললাইড ম্যাথ-bdtipstech
এপ্লাইড ম্যাথ


সাবজেক্ট হিসেবে আমাদের দেশে এপ্লাইড ম্যাথ প্রায় নতুন হলেও উন্নত দেশ গুলোতে এর চর্চা হচ্ছে বেশ আগ থেকেই।জেনে খুশি হবে স্যার আইজ্যাক নিউটন,চার্লস ব্যাবেজ,স্টিফেন হকিং এনারা সবাই এপ্লাইড ম্যাথেরই
লোক ছিলেন;বিশ্বাস না হলে গুগোল করে দেখতে পারো।জানো তো ম্যাথকে বলা হয়ে থাকে ল্যাঙ্গুয়েজ অব সাইন্স এছাড়া বিজ্ঞানী গ্যালিলিও বলেছেন-'Mathematics is the language that god has written the universe.'
একটা বিষয় অন্ততঃ নিশ্চিত যে ম্যাথ ছাড়া গোটা বিজ্ঞান জিনিসটাই অচল।আর এপ্লাইড ম্যাথ হচ্ছে সেই ম্যাথেরই প্রয়োগ;তার মানে সাবজেক্ট হিসেবে এর গুরুত্ব কতোটুকু বুঝতেই পারছো।
এবার আসো জেনে নেয়া যাক এপ্লাইড ম্যাথে তোমাকে কি কি পড়তে হবে-
1. Classical Math (Algebra, Geometry, Trigonometry, Set Theory, Number Theory etc.)
2. Calculus.
3. Fluid Mechanics.
4. Scientific Computing.
5. Computer Programming.
6. Statistics.
7. Actuarial Science.
8. Mathematical Economics. ইত্যাদি।
এপ্লাইড ম্যাথে ব্যাচেলর ডিগ্রী কমপ্লিট করার পর তোমাদের জন্য খুলে যাবে উচ্চ শিক্ষার এক নতুন দুয়ার।তোমরা চাইলে এপ্লাইড ও পিউর ম্যাথ বাদে কম্পিউটার সাইন্স, আইসিটি, বায়োইনফরমেটিক্স, বায়োস্ট্যাটিসটিক্স ইত্যাদি সবজেক্টের উপরও মাস্টার্স করতে পারবে।এছাড়া ইকোনমিক্স ও বিজনেস রিলেটেড সবজেক্টে সুইচ করার সুযোগ তো রয়েছেই।
পড়াশোনা কমপ্লিট করার পর আছে ব্যাংকার, আইটি এক্সপার্ট, শিক্ষকতা, রিসার্চার ইত্যাদি পেশায় কাজ করার সুযোগ।এছাড়া বিসিএস এর সুযোগ তো আছেই।
আরেকটা ব্যাপার।বাংলাদেশে মাত্র ৩টি ভার্সিটিতে এপ্লাইড মাথ সাবজেক্টটি পড়ানো হয়-
১. রাবি।
২. নোবিপ্রবি।
৩. ঢাবি।
ঢাবিতে গতবারই মাত্র এপ্লাইড ম্যাথ চালু হল;সে হিসেবে নোবিপ্রবির এপ্লাইড ম্যাথ ডিপার্টমেন্ট দেশের অন্যতম প্রাচীন এপ্লাইড ম্যাথ ডিপার্টমেন্ট।
ও হ্যাঁ!সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হচ্ছে এই সাবজেক্টে পড়তে হলে ম্যাথের প্রতি তোমার ভালোবাসা থাকতে হবে।একটা দারুন রিভিউ পড়ে এই সাবজেক্ট নেয়ার আগে নিজেকে জিজ্ঞেস করে নিও সত্যিই তুমি ম্যাথ ভালোবাসো কিনা?!না হয় পরে পস্তাতে হবে।এবার সিদ্ধান্ত তোমার।ম্যাথের সাথে তুমি অ্যারেঞ্জ ম্যারেজ করবে?নাকি লাভ ম্যারেজ? https://www.facebook.com/images/emoji.php/v9/ff8/1.5/16/1f61b.png:p
তোমরা যারা এপ্লাইড ম্যাথে ভর্তি হবে তাদের স্বাগত।
স্বাগত নোবিপ্রবিতে।
স্বাগত এপ্লাইড ম্যাথ পরিবারে।
সবার জন্য শুভকামনা।
নোবিপ্রবির ফেইসবুক পেইজ থেকে নেওয়া.........
যেকোনো প্রয়োজনে আমরা আছি
আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ bd tech group
ফেইসবুক পেইজ bd tips tech
ইউটিউব চ্যানেল Youtube channel
Read More »

সোমবার, জানুয়ারী ০৭, ২০১৯

খুব সহজে ওয়েবসাইট তৈরি(পর্ব-৯)ব্লগে যুক্ত করুন অটোমেটিক রিড মোর অপশন

খুব সহজে ওয়েবসাইট তৈরির ৯ম পর্বে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম।আশকরি সবাই ভাল আছেন।আজ যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবো সেটি হলো
ব্লগে অটোমেটিক রিড মোর ফাংশন যুক্ত করা।ব্লগের ডিফল্ট ব্লগার টেমপ্লেটে Read More অপশন যুক্ত করা থাকে না এর জন্য আমাদের ব্রেক বাটুন ইউস করতে।যা অনেকটা বিরক্তিকর।তাছারা যারা মোবাইল দিয়ে ব্লগে পোস্ট লিখেন তাদের রিড মোর ফাংশন এড করার কোন অপশন থাকে না।
 
ব্লগে যুক্ত করুন অটোমেটিক রিড মোর অপশন
ব্লগে যুক্ত করুন অটোমেটিক রিড মোর অপশন
কিভাবে ব্লগে অটোমেটিক রিডমোর ফাংশন যোগ করেবনঃ
    প্রথমে আপনার ব্লগার একাউন্টে লগইন করুন।
    তারপর ব্লগার ড্যাশবোর্ড হতে Template এ ক্লিক করে ব্যাকআপ নিয়ে।এবার Edit Html এ ক্লিক করুন।


    এরপর কিবোর্ড হতে Ctrl+F চেপে <data:post.body/> অংশটি সার্চ করুন। এই কোডটি হয়তো আপনার ব্লগার টেমপ্লেটের একাধিক জায়গায় দেখতে পাবেন।আপনি দ্বিতীয়টিতে ট্রাই করবেন।
    খুজে পেলে নিচের কোডগুলি কপি করে <data:post.body/> এর জায়গায় Replace করুন।

<b:if cond='data:blog.pageType != &quot;static_page&quot;'>

<b:if cond='data:blog.pageType != &quot;item&quot;'>

<div expr:id='&quot;summary&quot; + data:post.id'><data:post.body/></div>

<script type='text/javascript'>createSummaryAndThumb(&quot;summary<data:post.id/>&quot;,&quot;<data:post.url/>&quot;,&quot;<data:post.title/>&quot;);</script>

<span class='readmore' style='float:right;'><a expr:href='data:post.url'>Read More &#187;</a></span></b:if></b:if>

<b:if cond='data:blog.pageType == &quot;item&quot;'><data:post.body/></b:if>

<b:if cond='data:blog.pageType == &quot;static_page&quot;'><data:post.body/></b:if>
    আবার কিবোর্ড হতে Ctrl+F চেপে </head> অংশটি সার্চ করুন।
    এখন </head> অংশটির ঠিক উপরে নিচের JavaScript টি কপি করে পেষ্ট করুন। 

<script type='text/javascript'>

posts_no_thumb_sum = 490;

posts_thumb_sum = 400;

img_thumb_height = 130;

img_thumb_width = 240;

</script>

<script type='text/javascript'>

//<![CDATA[

function removeHtmlTag(strx,chop){

if(strx.indexOf("<")!=-1)

{

var s = strx.split("<");

for(var i=0;i<s.length;i++){

if(s[i].indexOf(">")!=-1){

s[i] = s[i].substring(s[i].indexOf(">")+1,s[i].length);

}

}

strx = s.join("");

}

chop = (chop < strx.length-1) ? chop : strx.length-2;

while(strx.charAt(chop-1)!=' ' && strx.indexOf(' ',chop)!=-1) chop++;

strx = strx.substring(0,chop-1);

return strx+'...';

}

function createSummaryAndThumb(pID, pURL, pTITLE){

var div = document.getElementById(pID);

var imgtag = "";

var img = div.getElementsByTagName("img");

var summ = posts_no_thumb_sum;

if(img.length>=1) {

imgtag = '<span class="posts-thumb" style="float:left; margin-right: 10px;"><a href="'+ pURL +'" title="'+ pTITLE+'"><img src="'+img[0].src+'" width="'+img_thumb_width+'px" height="'+img_thumb_height+'px" /></a></span>';

summ = posts_thumb_sum;

}



var summary = imgtag + '<div>' + removeHtmlTag(div.innerHTML,summ) + '</div>';

div.innerHTML = summary;

}

//]]>

</script>



<b:if cond='data:blog.pageType != &quot;static_page&quot;'>

<b:if cond='data:blog.pageType != &quot;item&quot;'>

<style type='text/css'>

.post-footer {display: none;}

.post {margin-bottom:15px;padding:5px;border:1px solid #93DAF8;border-radius:3px}

.readmore a {text-decoration: none;}

</style>

</b:if>

</b:if>
কাষ্টমাইজেশনঃ
    যখন পোষ্টে কোন ইমেজ Thumbnail থাকবে না, তখন কতটি অক্ষর শো করাতে চান এখানে লিখুন posts_no_thumb_sum = 490
    পোষ্টটিতে যখন ইমেজ Thumbnail থাকবে, তখন কতটি অক্ষর শো করাতে চান এখানে লিখুন posts_thumb_sum = 400
    নীল কালারের দুট অপশন এর মাধ্যমে Thumbnail Image এর Height ও Width পরিবর্তন করতে পারবেন।


    সবশেষে Save Template এ ক্লিক করুন।
আশাকরি সকল ব্লগার ভাইয়েরা বুঝতে পেরেছেন।ভাল লাগলে একটি কমেন্ট এবং শেয়ার করতে কৃপণতা বোধ করবেন না।
Read More »

রবিবার, জানুয়ারী ০৬, ২০১৯

popads আয় করুন popcash এর চেয়ে তিন গুন বেশি

bd tips tech আপনাদের স্বাগতমআশাকরি সবাই ভাল আছেনআজ আপনাদের যে বিষয়টা শেয়ার করবো সেটা popads.net সমন্ধ্যে
ইতিমধ্যে আপনার হয়তো আপনাদের ওয়েবসাইটে popcash এড ব্যবহার করেছেন কিন্তু ভাল ইনকাম করতে পারছেন নাআজ আপনাদের অন্য একটি পপএড নেটওয়ার্কের সাথে পরিচয় করয়ে দিব যেটা দিয়ে পপক্যাশের চেয়ে তিন গুন বেশি রেভিনিউ প্রদান করে এটির নাম পপএডসpopads.net পপক্যাশের চেয়ে একটি ভাল এড নেটওয়ার্ক একবার ব্যবহার করে দেখুন।প্রথমে popads.net এখান থেকে সকল তথ্য সঠিকভাবে পূরন করে সাইন আপ করে নিন 

keyword:,কিভাবে পপক্যাশ থেকে টাকা ইনকাম করবেন,কিভাবে ব্লগে পপক্যাশ এড বসাবেন,কিভাবে ব্লগ থেকে ইনকাম করবেন,কিভাবে ব্লগ থেকে টাকা ইনকাম করবেন,tech tunes,pc helpcenter.pchelpline
পপক্যাশ এ সাইন আপ
পপক্যাশ এ সাইন আপ(বিডি টিপ্স টেক)

এরপর আপনার ইমেইল ভেরিফাই করে নিনএবার popads লগইন করে new website  ক্লিক করুনতাহলে একটু ফ্রম দেখতে পাবেনএখানে সকল তথ্য সঠিকভাবে দিয়ে সাবমিট করুন 
পপক্যাশে ওয়েবসাইট এড
পপক্যাশে ওয়েবসাইট এড


আপনার সাইট যদি এডাল্ট হয় তাহলে এডাল্টের পাশে টিক চিহ্ন দিয়ে দিনসাবমিট করার সর্বোচ দিনের মধ্যে এপ্রোভ করা হবেএপ্রোভ হলে ইমেইলের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবেতারপর popads লগইন করে code generator ক্লিক করুনএবার আপনার সাইট সিলেক্ট করে generate code ক্লিক করুনতাহলে আপনি কোড পেয়ে যাবেনএবার আপনার ব্লগে লগইন করে template ক্লিক করে ব্যাকআপ নিয়ে নিনতারপর edit html ক্লিক করুনএবার ctrll+f চেপে সার্চ করুন </head> 

এই কোডটি খুজে পেলে ঠিক তার উপরে popads এর কোড গুলি পেস্ট করুন সবশেষে save template ক্লিক করুনএবার আপনার ব্লগে কেউ প্রবেশ করে কোথাও ক্লিক করলেই পপএড শো করবে এবং আপনার ইনকাম শুরু হবে।
 পেমেন্টঃমাত্র ৫ ডলার হলেই পেমেন্ট পাবেন।পেপাল,পেইজা দিয়ে উইথড্র দিতে পারবেন।
কিভাবে ইনকাম বৃদ্ধি করবেনঃইনকাম বৃদ্ধি করার জন্য আপনাদের বন্ধুদের রেফার করুন।এছাড়া আপনার সাইটে us,uk ভিজিটর আনার চেস্টা করুন।
কিভাবে ব্লগে পপএড সেটআপ কড়বেন টিউটোরিয়ালটি দেখুন

আশাকরি সবাই বুঝতে পেরেছেন।সমস্যা হলে কমেন্ট করুন।ধন্যবাদ।
Read More »

Get post by Email

copyright 2014-19@bdtipstech DMCA.com Protection Status